SL3 Framework

After Solved A Problem

আমরা লাস্ট ডকুমেন্টে প্রব্লেম সল্ভিং এর ছয়টা স্টেপ দেখেছি এবং সেই অনুযায়ী প্রব্লেম সল্ভ করাও দেখেছি। এই প্রাকটিস আমরা প্রতিটা প্রব্লেমের সাথেই অ্যাপ্লাই করবো। কিন্তু তারপরেও আমাদের জ্ঞানটা এখনো পরিপক্ব না। আমাদের জ্ঞানকে পরিপক্ব করার জন্য আরও অনেক গুলো স্টেপের মধ্য দিয়ে যেতে হবে। আমি মনে করি, প্রব্লেম সল্ভিং এর ছয়টা স্টেপের থেকে পরবর্তী চারটা স্টেপ অনেক বেশি জরুরি এবং আপনার ব্রেইন বিউলডিং এ সব থেকে বেশি কার্যকর ভূমিকা রাখবে।

একটা সমস্যা সমাধান করার পরে আমাদের নিম্নোক্ত চারটি স্টেপ অবশ্যই ফলো করতে হব। একটা স্টেপও বাদ দেওয়া যাবে না। স্টেপ গুলো হলো -

  1. Find Similar Problems
  2. Solve Similar Problems
  3. Explore Documentation
  4. Writedown The Learning Experience

Find Similar Problems:

প্রোগ্রামিং এ একটা সমস্যা সমাধান করার থেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে ওই সমস্যাটাকে বাস্তবের সাথে মিলিয়ে দেখা, একই ধরনের আরও কিছু সমস্যা খুঁজে বের করা। প্রোগ্রামিংএ এই রকম সমস্যা আপনি কম সময়ই খুঁজে পাবেন যেগুলো খুবই ইউনিক। আপনাকে খুজতে হবে, প্রচুর খুঁজতে হবে। একটা সমস্যা সমাধান করার পরে সেই সমস্যার মতো আরও কিছু সমস্যা যদি আপনি খুঁজে না পান, তার মানে আপনি ওই বিষয়টা এখনো পুরোপুরি বুঝতেই পারেন নি। একজন প্রোগ্রামার হিসেবে সমস্যার সমাধান করাটা যতটা জরুরি তার থেকে অনেক বেশি জরুরি সমস্যা খুঁজে বের করতে শেখা। কারণ সব সময় সমস্যার বর্ণনা খুব সুন্দর হবে এমনটা আশা করা একদম বোকামি। আপনাকেই ছোট্ট একটা ইনফরমেশন থেকে সমস্যা খুঁজে বের করে সমাধান করতে হতে পারে। আবার প্রোগ্রামিং এ প্যাটার্ন খুঁজে বের করাটাও খুব জরুরি বিষয়। একই প্যাটার্নের হাজার হাজার সমস্যা আপনি খুঁজে পাবেন যখন আপনি প্রোগ্রামিং এর প্যাটার্নটা ভালো ভাবে বুঝতে পারবেন।


Solve Similar Problems:

কয়েকটা সিমিলার প্রব্লেম খুঁজে বের করার পরের কাজটা খুব সহজ। চোখ বন্ধ করে সেগুলোও সল্ভ করে ফেলুন। একই কনসেপ্ট এর ৪-৫ টা প্রব্লেম সল্ভ করলে পুরো কনসেপ্টটা আপনার পরিষ্কার হয়ে যাবে। প্রব্লেম সল্ভ করার সময় আবার প্রব্লেম সল্ভিং এর ছয়টা স্টেপ মেনেই প্রব্লেম গুলো সল্ভ করবেন।


Explore Documentation:

ডকুমেন্টেশনের নাম শুনলেই আমাদের ভিতরে একটু ভয় কাজ করে। মনে হয় ডকুমেন্টেশন খুব কঠিন, আমার মতো বিগিনারের জন্য ডকুমেন্টেশন না। একদম ভুল কথা, ডকুমেন্টেশন সবার জন্য। আমি মানছি প্রথম দিকে ডকুমেন্টেশন বুঝতে একটু সমস্যা হবে। কিন্তু আপনাকে প্রথমেই ডকুমেন্টেশন পড়তে হবে না। আপনি একটা বিষয় ভালো ভাবে শিখলেন, সেটা দিয়ে কিছু সমস্যাও সমাধান করলেন। এবার সমস্যা সমাধান করার সময় যেই বিষয় গুলো আপনার বার বার সামনে আসলো সেগুলোর ডকুমেন্টেশনটা দেখুন, বোঝার চেষ্টা করুন। কারণ ডকুমেন্টেশন হচ্ছে যে কোনো টেকনোলজি শেখার আল্টিমেট রিসোর্স। আর ডকুমেন্টেশন পড়া হচ্ছে একধরনের প্রাকটিস। আপনি ডকুমেন্টেশন বুঝেন আর নাই বুঝেন আপনাকে পড়তে থাকতে হবে। আপনাকে ডকুমেন্টেশন পড়ার প্রাকটিস করতে থাকতে হবে। একটা সময় এমন হয়ে যাবে যে, কোনো ল্যাংগুয়েজ, লাইব্রেরী বা ফ্রেমওয়ার্ক শেখার জন্য আপনার কোনো কোর্স এনরোল করার দরকার হবে না। শুধুমাত্র ডকুমেন্টেশন দেখেই শিখতে পারবেন।


Writedown The Learning Experience:

এই পুরো সেশনের সব থেকে মজার এবং সব থেকে কমপ্লিকেটেড পার্ট হচ্ছে এটা। আপনারা নিশ্চয় জানেন আমরা Stack Journal রিলিজ করেছি? কেন করেছি? আমরা Stack Learner এর মধ্যে কি করি, কি না করি, কি একসেপ্ট হয়, কি রিজেক্ট হয় সমস্ত রিসার্স আমরা জার্নালে পাবলিশ করি। আপনি খুঁজলে প্রচুর আর্টিকেল পাবেন যে গুলো SL3 Framework এর জন্য লেখা কিন্তু রিজেক্ট হয়েছে। আমরা সেগুলো রেখে দিয়েছি জার্নাল হিসেবে। ঠিক একই ভাবে আপনি সারা দিন কি শিখলেন, কি পড়লেন, কি কি প্রব্লেম সল্ভ করলেন পুরো জার্নিটা আপনি কোথাও লিখে রাখতে পারেন। অনেকটা ডায়েরি লেখার মতো, তবে এটা হবে আপনার প্রোগ্রামিং ডায়েরি। সারাদিন আপনি কি করেছেন তা যখন আপনি লিখবেন তখন আপনার পুরো প্রোসেসটা আবার রিক্যাপ হয়ে যাবে। আপনি ইচ্ছে করলে ভিডিও ব্লগও তৈরি করতে পারেন। আবার ইচ্ছে করলে আপনার লেখা, ভিডিও কোনো একটা অনলাইন প্লাটফর্মে পাবলিশও করতে পারেন। এতে করে অন্যেরও যেমন উপকার হতে পারে, আবার আপনার কন্টেন্ট যদি মানুষের পছন্দ হয় এখান থেকে আর্নিংস এর ও একটা রাস্তা হয়ে যেতে পারে।


Problem Solving + Get Stable দুইটা মিলে সর্বমোট দশটা স্টেপ আপনাকে মেনে চলতে হবে। খুব বেশি দিন না, মাত্র ২১ দিন আপনি শুধু এই প্রাকটিসটা চালাবেন। ২১ দিনে মাত্র ২১ টা সমস্যা আপনি এই ভাবে সমাধান করুন। এর পরে আপনাকে আর বলে দিতে হবে না যে কি করতে হবে। এর পরে আর এই ফ্রেমওয়ার্ক মেনে কাজ করার কোনো দরকার নেই। তবে মনে রাখবেন, ২১ দিন যেন টানা ২১ দিন হয়। যদি ২০ নাম্বার দিনে এসেও এই রুটিন ব্রেক হয়ে যায় তাহলে আবার প্রথম দিন থেকে শুরু করতে হবে। এই ২১ দিনে কি কি সমস্যা সমাধান করবেন তার লিস্ট আমরা আপনাকে প্রোভাইড করবো। এই ২১ দিনের এক্সপেরিয়েন্স আপনি আমাদের ফেসবুক গ্রুপে অথবা আমাদের জার্নালেও শেয়ার করতে পারবেন। আর এই ২১ দিন পর থেকে আপনি অনলাইন জাজে প্রব্লেম সল্ভ করতে পারেন। প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ ফোকাস করে নেক্সট স্টেপে যেতে পারেন, অবজেক্ট অরিয়েন্টেড, ডেটা স্ট্রাকচার, অ্যালগোরিদম শিখতে পারেন। আর কি কি করতে পারেন তা আমাদের What Next সেকশনে জেনে যাবেন।

Edit this page on GitHub